মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৫ অক্টোবর ২০১৬

ব্যক্তিগত পেনশন বীমা পলিসি প্ল্যান-১২

পেশাজীবী ও কর্মজীবী মানুষ স্বভাবতঃই অবসর জীবনে নিরুদ্বেগ স্বচ্ছল শান্তিময় দিন যাপনের নিশ্চয়তা চান। পরিণত বয়সে যখন নিয়মিত আয়ের কোনো নিশ্চয়তা থাকে না, পেনশন বীমা পলিসি ঠিক তখনই নিয়মিত মাসিক অর্থাগমের ব্যবস্থা করে। অবসর জীবনের আর্থিক প্রয়োজনের দিকে লক্ষ্য রেখেই তৈরি করা হয়েছে আমাদের পেনশন বীমা পরিকল্পনা। যে কোনো পেশায় নিয়োজিত মানুষ এই পলিসি নিতে পারেন। এর অন্যতম প্রধান আকর্ষণ হলো কর্মজীবনে অকাল মৃত্যুতে পরিবারের জন্য বীমার নিরাপত্তা বিধান-যা অন্য কোনো সঞ্চয় মাধ্যমে সম্ভব নয়।

পেনশন বীমার আকর্ষণ

  • একই সাথে কর্মজীবনে অকাল মৃত্যুতে জীবন বীমার নিরাপত্তা এবং অবসর জীবনের জন্য আমরণ পেনশনের ব্যবস্থা।
  • পেনশন প্রদান শুরুর ১০ (দশ) বছরের মধ্যে মৃত্যু হরে দশ বছরের বাকী সময়ের জন্য পেনশন ভোগীর মনোনীতকের পেনশন লাভের গ্যারান্টি।
  • পেনশন প্রাদন শুরুর নির্ধারিত তারিখের পূর্বে মৃত্যু হলে নিমেড়বাক্ত দুইটি বিকল্পের যেটিতে বেশি অর্থ পাওয়া যায়, তা মনোনীতককে এককালীন পরিশোধের নিশ্চয়তা:

(ক) প্রথম বছরের প্রিমিয়াম বাদে প্রদত্ত সকল প্রিমিয়াম ৭% ভাগ সরল সুদসহ প্রদান। অথবা

(খ) একটি বার্ষিক প্রিমিয়ামের ১৫ (পনেরো) গুণ অর্থ প্রদান।

  • মেয়াদ পূর্তিতে পেনশনের টাকার আংশিক সমর্পণ (কম্যুটেশন) করে এককালীন টাকা পাওয়ার সুবিধা।পেনশনের অর্ধেক পর্যন্ত সমর্পণ করা যায়। বীমার টাকা, পেনশন অথবা এককালীন প্রাপ্ত টাকা সম্পূর্ণ আয়কর মুক্ত। প্রদত্ত প্রিমিয়ামের উপরেও আয়কর রেয়াত পাওয়া যায়।
  • এই বীমা পরিকল্পনায় বড় অংকের পেনশন বা প্রিমিয়াম প্রদান-পদ্ধতির জন্য কোনো রকম রেয়াত প্রদানযোগ্য নয়।
  • মহিলা জীবনের বেলায় বর্তমান তালিকা হারের সহিত অতিরিক্ত ৫% যোগ করতে হবে।
  • সর্বোচ্চ ৫০ (পঞ্চাশ) বৎসর পর্যন্ত এই বীমা গ্রহণ করা যাবে।
  • তবে বিশেষ ক্ষেত্রে শর্তসাপেক্ষে সর্বোচ্চ ৫৪ (চুয়ানড়ব) বৎসর পর্যন্ত কেন্দ্রীয় অবলিখন বিভাগ এই বীমার অবলিখন করবে।

Share with :
Facebook Facebook